ঢাকা শেয়ার বাজার

২১ জুলাই ২০২৪ রবিবার ৬ শ্রাবণ ১৪৩১

উভয় স্টক এক্সচেঞ্জে সূচক বাড়লে ও লেনদেন কমেছে ডিএসইতে

সবার আগে শেয়ার বাজারের নির্ভর যোগ্য খবর পেতে আপনার ফেসবুক থেকে  “ঢাকা শেয়ার বাজার ডট কম” ফেসবুক পেজে লাইক করে রাখুন, সবার আগে আপনার ওয়ালে দেখতে। লাইক করতে লিংকে ক্লিক করুন  facebook.com/dhakasharebazar

আজ সোমবার ২৩ জানুয়ারি ২০২৩, দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) মূল সূচক সামান্য বাড়লেও   লেনদেন গত দিনের চেয়ে নেতিবাচক ধারাতে শেষ হয়েছে।

আজ ডিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ৫০৯.৬২ কোটি টাকার শেয়ার। যা গতদিন ছিল ৬৯২.৭৫ কোটি টাকার শেয়ার। আজ ডিএসইতে গত দিনের চেয়ে ১৮৩.১৩ কোটি টাকার কম শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের লেনদেন হয়েছে।

লেনদেনে আজ মূল সূচক ডিএসইএক্স সূচক ৭.৫৭ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ৬২৬৩.৫০ পয়েন্টে। এছাড়া ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক ৪.৪৯ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ১৩৬৫.১৭ পয়েন্টে। ডিএস ৩০ সূচক ৭.৩৬ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২২১১.৭১ পয়েন্টে।

আজ ডিএসইতে মোট ৩৪৯ টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দাম বেড়েছে মাত্র ৩৪ টির, কমেছে ১৪০ টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ১৭৫ টির।

 

অপর দিকে দেশের ২য় শেয়ার বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচক সামান্য বেড়েছে এবং লেনদেনও গত কালের চেয়ে অল্প কিছু বেড়ে, লেনদেন শেষ হয়েছে। সিএসই সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ২.৭৭ পয়েন্ট বেড়ে সূচক অবস্থান করছে ১৮৪৫৭.০৩ পয়েন্টে।

আজ সিএসইতে ৮.৫৭ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। যা গতকাল ছিল ৮.০২ কোটি টাকা। আজ সিএসইতে গত দিনের চেয়ে ৫৫ লাখ টাকার বেশি শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের লেনদেন হয়েছে।

আজ সিএসই তে মোট ১৭৩ টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দাম বেড়েছে ২৮ টির, কমেছে ৭৩ টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৭২ টির।

 

আজও গত দিনের মতো উভয় স্টক এক্সচেঞ্জে শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত বাজার ওঠা নামার মধ্যে ছিল, এবং শেষ পর্যন্ত উভয় স্টক এক্সচেঞ্জের  সূচক সামান্য বেড়ে আজকে লেনদেন শেষ হয়েছে। আজ উভয় স্টক এক্সচেঞ্জে টপ গেইনিং এ ইন্সুরেন্স খাতের শেয়ার ও লোপেইড শেয়ার ছিল।

 

আজ লেনদেন চলাকালীন বেশ কয়েকটি হাউজের অফিস ঘুরে দেখা গেল বিনিয়োগকারীদের উপস্থিতির হার খুবই কম ছিল। পাশাপাশি হাউজ রিলেটেড অফিসারদের হতাশা জনক আলাপ হতে দেখা গেল। আজ বেশ কয়েকজন বিনিয়োগকারীদের সাথে কথা বলে জানা গেল প্রতিদিন শেয়ার ও সেক্টর চেইঞ্জ হওয়াতে, তারা ট্রেডিং করতে পারছেন না। আবার বেশ কয়েকজন সেক্টর ও শেয়ার মুভমেন্ট কে ইতিবাচক হিসাবে নিচ্ছেন।

বাজার সংশ্লিষ্ট একজন অভিজ্ঞ শেয়ার বিশ্লেষক বললেন এই মাসে, জুন ক্লোজিং সব কোম্পানি গুলির ২য় প্রান্তিক ইপিএস আসবে, তাই অনেকেই সাইড লাইনে আছেন। তিনি আশাবাদী ফেব্রুয়ারী মাসে, একটি স্বাভাবিক বাজার দেখতে পাবেন।

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn
আপনি এটাও পড়তে পারেন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

শেয়ার বাজার
error: বিষয়বস্তু সুরক্ষিত !!