ঢাকা শেয়ার বাজার

১৯ জুলাই ২০২৪ শুক্রবার ৪ শ্রাবণ ১৪৩১

কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ‘চ্যাটজিপিটি’ বদলে দিবে বিশ্বকে

সবার আগে শেয়ার বাজারের নির্ভর যোগ্য খবর পেতে আপনার ফেসবুক থেকে  “ঢাকা শেয়ার বাজার ডট কম” ফেসবুক পেজে লাইক করে রাখুন, সবার আগে আপনার ওয়ালে দেখতে। লাইক করতে লিংকে ক্লিক করুন  facebook.com/dhakasharebazar

গত বছরের নভেম্বরে ওপেনএআইয়ের তৈরি কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা (এআই) প্রযুক্তির চ্যাটবট ‘চ্যাটজিপিটি’ উন্মুক্ত হওয়ার পর দ্রুত জনপ্রিয়তা পাওয়ায় প্রযুক্তি বিশ্বে চলছে নানা জল্পনাকল্পনা।

বর্তমানে প্রযুক্তি জগতে সবচেয়ে বেশি যে বিষয় নিয়ে আলোচনা হচ্ছে, তা হলো চ্যাটজিপিটি (চ্যাট জেনারেটিভ প্রি–ট্রেইনড ট্রান্সফরমার)। চ্যাটজিপিটি হচ্ছে একটা মেশিন লার্নিং মডেল, বুদ্ধিমান যন্ত্রও বলতে পারি। ইন্টারনেটে থাকা প্রচুর লেখা বা টেক্সট ডেটা ব্যবহার করে একে প্রশিক্ষিত করা হয়েছে।

চ্যাটজিপিটিকে যেকোনো প্রশ্ন করলে লিখিত আকারে মানুষের মতো উত্তর দিতে পারে। কোনো কিছুর ব্যাখ্যা চাইলে সহজ ভাষায় ব্যাখ্যা করে দেয়। কোনো কম্পিউটার প্রোগ্রাম লিখে দিতে বললে তা লিখে দেয়। কোনো একটা বিষয়ের ওপর নিবন্ধ লিখতে বললেও লিখে দেয়। এককথায় সব বিষয়ে পারদর্শী। একজন মানুষ যা করতে পারবে, চ্যাটজিপিটি প্রায় তাই করতে পারে। একটাই সীমাবদ্ধতা এখনো আছে, তা হলো, সব উত্তর লিখিত আকারে দেয় এটি।

যে কেউ চ্যাটজিপিটির সঙ্গে চ্যাট করতে পারবেন। এখন শুধু ওয়েবসাইটে চ্যাটজিপিটি ব্যবহার করা যায়। ঠিকানার ওয়েবসাইটে পাওয়া যাবে চ্যাটজিপিটি। এখানে অ্যাকাউন্ট খুলে লগইন করে চ্যাট করা যাবে এই ‘বুদ্ধিমান’ প্রোগ্রামের সঙ্গে। নিচের দিকে চ্যাট উইন্ডো রয়েছে। সেখানে গিয়ে যেকোনো প্রশ্ন জিজ্ঞেস করলেই উত্তর দেবে।

 

বিনা মূল্যে ব্যবহারের সুযোগ থাকায় এরই মধ্যে মাসে ১০ কোটির বেশি ব্যবহারকারী নিয়মিত চ্যাটজিপিটি ব্যবহার করছেন। এ জনপ্রিয়তা ধরে রাখতে ‘চ্যাটজিপিটি প্লাস’ সংস্করণ বাজারে আনার ঘোষণা দিয়েছে চ্যাটজিপিটির নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ওপেনএআই।

নতুন সংস্করণটিতে বেশ কিছু বাড়তি সুবিধা পাওয়া গেলেও ব্যবহারের জন্য মাসে ২০ মার্কিন ডলার খরচ করতে হবে। নতুন সংস্করণটির বিভিন্ন উল্লেখযোগ্য দিক আছে।

 

একই সময়ে সর্বোচ্চ সংখ্যক ব্যবহারকারী (ট্রাফিক) থাকলেও চ্যাটজিপিটিতে প্রবেশ ও বিভিন্ন সুবিধা দ্রুত ব্যবহার করা যাবে চ্যাটজিপিটি প্লাস সংস্করণে। ফলে দ্রুত প্রশ্নের উত্তর পাওয়ার পাশাপাশি চ্যাটজিপিটির সাহায্যে বিভিন্ন কাজ স্বচ্ছন্দে করিয়ে নেওয়া যাবে। শুধু তা–ই নয়, চ্যাটজিপিটিতে নতুন কোনো সুবিধা যুক্ত হলে বা হালনাগাদ সংস্করণ এলে সবার আগে ব্যবহারের সুযোগ পাবেন চ্যাটজিপিটি প্লাস ব্যবহারকারীরা।

চ্যাটজিপিটি প্লাস সংস্করণটি প্রাথমিকভাবে যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসকারীরা ব্যবহার করতে পারবেন। তবে পর্যায়ক্রমে অন্যান্য দেশ থেকেও সংস্করণটি ব্যবহার করা যাবে। প্রাথমিকভাবে কম্পিউটারে এ সুবিধা পাওয়া গেলেও ভবিষ্যতে মুঠোফোন থেকেও চ্যাটজিপিটি প্লাস ব্যবহার করা যাবে।

বর্তমানে বিনা মূল্যে চ্যাটজিপিটি ব্যবহার করা যায়। ওপেনএআই জানিয়েছে, নির্দিষ্ট সংখ্যক ব্যবহারকারীকে অর্থের বিনিময়ে বাড়তি সুবিধা দেওয়ার মাধ্যমে অন্যদের স্থায়ীভাবে বিনা মূল্যে চ্যাটজিপিটি ব্যবহারের সুযোগ দিতে চ্যাটজিপিটি প্লাস সংস্করণটি উন্মুক্ত করা হবে।
সূত্র: এনালাইটিকসইনসাইট ডটনেট

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn
আপনি এটাও পড়তে পারেন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

শেয়ার বাজার
error: বিষয়বস্তু সুরক্ষিত !!