ঢাকা শেয়ার বাজার

১৩ জুলাই ২০২৪ শনিবার ২৯ আষাঢ় ১৪৩১

কোনো সিনিয়র ক্রিকেটার পারফর্ম না করলে বাদ দেয়া হবে

সবার আগে শেয়ার বাজারের নির্ভর যোগ্য খবর পেতে আপনার ফেসবুক থেকে  “ঢাকা শেয়ার বাজার ডট কম” ফেসবুক পেজে লাইক করে রাখুন, সবার আগে আপনার ওয়ালে দেখতে। লাইক করতে লিংকে ক্লিক করুন  facebook.com/dhakasharebazar

‘কোনো সিনিয়র খেলোয়াড় যদি পারফর্ম না করে, হাথুরু তাকে দলে রাখবে না,’ মন্তব্য বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসানের। তিনি আশা করেন, ইংল্যান্ডের বিপক্ষে আসন্ন হোম সিরিজ থেকে বাংলাদেশ দলের সাজঘর ‘স্বাস্থ্যকর’ হবে। যেটির ঘাটতি ছিল রাসেল ডমিঙ্গো কোচ থাকার সময়।

তবে ক্রিকেটবিষয়ক ওয়েবসাইট ক্রিকবাজকে এরচেয়েও বিস্ফোরক তথ্য দিয়েছেন বিসিবি প্রধান।

শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনাটাকে নিজের প্রথম অগ্রাধিকার হিসাবে উল্লেখ করে জাতীয় দলের দুই সিনিয়র ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান ও তামিম ইকবালের দ্বন্দ্বের গুঞ্জন প্রকাশ্যে নিয়ে আসেন নাজমুল হাসান। স্বীকার করেন, দলে গ্রুপিং রয়েছে।

তিনি বলেন, ‘গ্যারান্টি দিয়ে বলতে পারি, এখনকার ড্রেসিংরুম স্বাস্থ্যকর নয়। সাকিব ও তামিম দুজনের সঙ্গেই আমি কথা বলেছি। বুঝতে পেরেছি যে, ওদের মধ্যে যা চলছে, এই মুহূর্তে তার সমাধান করা সহজ নয়। এটা আমাদের পর্যবেক্ষণ। ওদের দুজনকেই একটাই বার্তা দেওয়া হয়েছে-আমরা জানি না তোমাদের মধ্যে কী চলছে। কিন্তু কোনো ম্যাচ ও সিরিজে যেখানে তোমরা খেলছ, এই দ্বন্দ্ব যেন প্রকাশ না পায়। দুজনই আশ্বস্ত করেছে যে, ম্যাচে তার প্রভাব পড়বে না।’

বিসিবি সভাপতি হিসাবে আইসিসির বোর্ড সভায় তার প্রথম অংশগ্রহণ সুখকর ছিল না জানিয়ে তিনি বলেন, ‘মনে হয়েছিল যেন সেখানে কোনো স্থান নেই বাংলাদেশের। পরের সভায় কথা উঠেছিল বাংলাদেশ ও জিম্বাবুয়েকে টেস্ট থেকে বাদ দেওয়ার। তাই ওই সভার পর আমার প্রধান লক্ষ্য হয়ে ওঠে দলের পারফরম্যান্স ভালো করা। কেননা, যখন আপনি পারফর্ম করবেন, তখন তাদের (আইসিসি) দৃষ্টি আকর্ষণ না করার কোনো কারণ নেই।’

তার সংযোজন, ‘আমাদের লক্ষ্য হলো, র‌্যাংকিংয়ে পঞ্চম স্থানে ওঠা। আপনি যদি র‌্যাংকিংয়ে উন্নতি করেন, তাহলে সবাই আপনাকে গুরুত্ব দেবে। আরেকটি বিষয় হচ্ছে দর্শক। কোনো দল যত দিন না দর্শক টানতে পারছে ততদিন তাদের সম্পর্কে উঁচু ধারণা থাকবে না আইসিসির। দুটি বিষয়ই একে অন্যের সঙ্গে সম্পৃক্ত। পারফরম্যান্স ভালো হলে দর্শক মাঠে আসবেই।’

ক্রিকবাজের সঙ্গে দীর্ঘ সাক্ষাৎকারে নাজমুল হাসান স্বীকার করেন যে, দলের সিনিয়র খেলোয়াড়দের সামলানো চন্ডিকা হাথুরুসিংহের জন্য কঠিন হবে। তিনি বলেন, ‘ডমিঙ্গোরও এই সমস্যা ছিল। একপর্যায়ে সে হাল ছেড়ে দেয়। আপনি যদি হাল ছেড়ে দেন, তাহলে আমরা (বিসিবি) উপকৃত হব না।’

নাজমুল হাসান যোগ করেন, ‘সিনিয়রদের সামলানো তাই দুরূহ। আমাদের খেলোয়াড়দের নিয়ে সমস্যা হলো এই যে, তারা নিজেদের ভবিষ্যৎ নিয়ে আমাদের সঙ্গে কোনো কথা বলে না। তাই হাথুরু ও সিনিয়র খেলোয়াড়-দুই পক্ষের জন্যই এটি একটি কঠিন চ্যালেঞ্জ। একটা জিনিস আমার কাছে স্পষ্ট, কোনো সিনিয়র খেলোয়াড় যদি পারফর্ম না করে, তাহলে হাথুরু তাকে দলে রাখবে না।’

তিনি বলেন, ‘হাথুরু আসার পর আমার মনে হচ্ছে একটি সমস্যা তৈরি হবে। তবে আমি তা প্রকাশ করব না। আশা করব, সমস্যাটা যেন বড় না হয়। ড্রেসিংরুমে সিনিয়রদের সে প্রশ্রয় দেবে না। এটাই সবচেয়ে বড় সমস্যা। হয় তার পরিকল্পনা মতো সবাইকে কাজ করতে হবে, তা না হলে সে চলে যাবে। এই হচ্ছে হাথুরু।’ সাকিব আল হাসানের সঙ্গে কোনো কোচের কখনো সমস্যা হয়নি উল্লেখ করে নাজমুল হাসান বলেন, ‘আমার মনে হয় না যে, তামিম ও সাকিবের সঙ্গে কোচের কোনো সমস্যা হবে।’

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn
আপনি এটাও পড়তে পারেন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

শেয়ার বাজার
error: বিষয়বস্তু সুরক্ষিত !!