ঢাকা শেয়ার বাজার

১৯ জুলাই ২০২৪ শুক্রবার ৪ শ্রাবণ ১৪৩১

শেয়ারবাজার বিনিয়োগ কৌশল নিয়ে এক জন টেকনিক্যাল এনালিস্টের কিছু কথা

সবার আগে শেয়ার বাজারের নির্ভর যোগ্য খবর পেতে আপনার ফেসবুক থেকে  “ঢাকা শেয়ার বাজার ডট কম” ফেসবুক পেজে লাইক করে রাখুন, সবার আগে আপনার ওয়ালে দেখতে। লাইক করতে লিংকে ক্লিক করুন  facebook.com/dhakasharebazar

শেয়ার বাজার সে যেন এক গোলক ধাঁদা, এমনই মনে করেন খুব সাধারণ মানুষেরা, আসলে বিষয়টা এমন নয়। দেশে আবার অনেক শিক্ষিত লোক আছেন, অবাক লাগলেও সত্য যে তারা শিক্ষিত হওয়া সত্বেও, একই রকম ভাবেন।

যাই হোক, শেয়ার বাজার হচ্ছে যে বাজারে কোন কোম্পানির মালিকানা সাধারণ বিনিয়োগকারীর সাথে শেয়ার করে, সে বাজার। এদিকে যদি বলি স্টক এক্সচেঞ্জ, তাহলে অর্থ দাড়ায় প্রথমে স্টক এবং পরে এক্সচেঞ্জ।

যেকোনো কিছু করার আগে শিখে নিতে হয়। অবাক হবেন যে, সঠিক বিনিয়োগ শিক্ষা, সময় উপযোগী চিন্তা ও পরিকল্পনা ছাড়াই ব্যাবসা করে যাচ্ছেন অনেকে। তাতে আসলে লাভ কার হচ্ছে, বোঝাই যায়।

আবার বর্তমানে হাউজের শাখা বৃদ্ধি পাওয়ায় বিনিয়োগকারী শিখেছে বা শেখাচ্ছে ট্রেড মানে কেনা আর বেচা। কিন্তু এই কেনা বেচায় অনেক ক্ষেত্রেই হাউজেরাই লাভবান সাথে আরো অনেকে।

আবার ঐ সব হাউজের অফিসারদের টার্গেট দিয়ে দেয়া হয় উপর থেকে। আশ্চর্য জনক হলে সত্য, তারা আবার বিনিয়োগকারীদের মাধ্যমে টার্গেট পূরণও করে নেয়। এযেন আম পাবলিকের মাথায় লবন রেখে বড়ই খাওয়া।

 

যদিও এ বাজারে মানুষ অলস টাকা বিনিয়োগ করে, বাড়তি লাভের আশায় আসেন। প্রথমে বছরে ১৫-২০% লাভের আশায় বাজারে এলেও, পরবর্তীতে প্রতিদিন লাভের নেশায় মত্ত হয়ে ভুলভাল ট্রেড করে বা ঘনঘন ট্রেড করে নিঃস্ব হয়ে যায়। এছাড়া আছে নিঃস্ব হওয়ার পিছনে আছে অনেক কারণ। আমাদের বিনিয়োগকারীদের এই ব্যবসা নিয়ে আছে অজ্ঞতা, শেখার প্রতি আছে অনিহা। অনেক মানুশেরা আবার ধারণা আমাদের বাজারে কোন কিছু কাজ করে না।

মূলত পৃথিবীর সব বাজারই এমন। এ বাজারে কখনও সবাই লাভ করতে পারে না। বিশ্ব জুড়ে এ বাজারে গেইনার ৫-১০% মানুষ। তাহলে ৯৫ জনের দলে না থেকে ৫ জনের দলে থাকতে হলে, আপনাকে অন্যদের তুলনায় আলাদা হতে হবে।

 

আমি মানলাম আমাদের বাজারে কোন শিক্ষা বা জ্ঞান কাজ করে না। আমাদের বাজার কোন নিয়ম মানে না। আমাদের বাজার কলুষিত। তাহলে, এ বাজারে আছি কেন? এ পদ্ধতি আমি পরিবর্তন করতে পারব না। আর এ বাজারও সবার জন্য ব্যবসা উপযোগী কোনদিন হবে না।

তাহলে! করণীয় কি?

করণীয় এরই মাঝে নিজেকে টিকিয়ে রেখে ব্যবসা করার কৌশল আয়ত্ত করা। এই কৌশলকে পুঁজি বাজারে বিনিয়োগ কৌশল বা সিস্টেম বা স্ট্রেটেজি বলে। আপনার অভিজ্ঞতা, আপনার জ্ঞান, মানি ম্যানেজমেন্ট, রিস্ক ম্যানেজমেন্ট, মার্কেট সাইকোলজি, সর্বোপরি বাজারের চাহিদা অনুযায়ী নিজের বিনিয়োগ কৌশল তৈরি করে নিতে হবে।

আমাদের বাজারে অনেক সফল বিনিয়োগকারীও আছেন। তাদের সংখ্যা ঐ শতকরা ৫ জন। প্রয়োজনে তাদের সহযোগিতা নিয়ে, আপনিও এ বাজারে একজন সফল বিনিয়োগকারী হতে পারেন। উন্নত বিশ্বে শেয়ার বাজারকে কেন্দ্র করে কনসালটেন্ট ফার্ম গড়ার নীতি আছে।

পরিশেষে বলি, আমরা অনেক কিছুর সাথে এখানেও প্রবল পিছিয়ে। পৃথিবী আগাচ্ছে, আগাবে আমাদের দেশ, আমাদের শেয়ার বাজার ও বিনিয়োগকারীরা।

লিখেছেন…

এ এইচ সিকদার

শেয়ার বাজার টেকনিক্যাল এনালিস্ট ও বিনিয়োগকারী

যাত্রাবাড়ি, ঢাকা

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn
আপনি এটাও পড়তে পারেন

3 Responses

  1. শিকদার ভাই, আসসালামু আলাইকুম।
    কেমন আছেন। আমি ভাল নেই মন মানুষিকতা খুব খারাপ।
    আপনার কাছে টেকনিক্যাল এনালাইসিস শেখার প্রচন্ড ইচ্ছা আছে।
    আপনার ট্রেডিং সিস্টেম আমি এর আগে কয়মাস ফলো করছি।
    এই বাজারে টিকে থাকতে হলে শেখার কোনো বিকল্প নাই।
    আমি এখন অনেক টাকা লসে আছি। লস মেনেও বের হতে
    পারছি না। জানিনা আগামীতে মার্কেট কেমন হবে আর আমার কিনা
    আইটেমগুলা বাই রেটে যাবে কিনা জানিনা। তাও অপেক্ষা করছি ভাই।
    কিছু ইন্স্যুরেন্স কিনা হাই রেটে কোনো একজনের পরামর্শে। অনেকগুলা টাকা চোখের সামনে
    তেজপাতা হয়ে যাচ্ছে। কিছুই করার নাই। তবে আমাদের সবার উচিত, বাজার সম্পর্কে
    ন্যুনতম ধারণা রাখা এবং অভিজ্ঞ কারো পরামর্শ গ্রহণ করা।
    এবং এই বিষয়ে সঠিক পরামর্শ ও এনালাইসিস আমার মনে হয় শিকদার ভাই কিছুটা দিতে পারছে।
    আমি শিকদার ভাইয়ের দীর্ঘ হায়াৎ ও সুস্থ্যতা কামনা করছি।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

শেয়ার বাজার
error: বিষয়বস্তু সুরক্ষিত !!