ঢাকা শেয়ার বাজার

১৯ জুলাই ২০২৪ শুক্রবার ৪ শ্রাবণ ১৪৩১

শেয়ারের দাম বাড়লেই বিক্রির চাপ, বাজার দাঁড়াতে পারছেনা

সবার আগে শেয়ার বাজারের নির্ভর যোগ্য খবর পেতে আপনার ফেসবুক থেকে  “ঢাকা শেয়ার বাজার ডট কম” ফেসবুক পেজে লাইক করে রাখুন, সবার আগে আপনার ওয়ালে দেখতে। লাইক করতে লিংকে ক্লিক করুন  facebook.com/dhakasharebazar

আজ বৃহস্পতিবার ৯ই মার্চ ২০২৩ তারিখে উভয় স্টক এক্সচেঞ্জের সূচক গতদিনের কাছাকাছি থাকলেও উভয় স্টক এক্সচেঞ্জের লেনদেন গতদিনের চেয়ে বেশ কমেছে।

দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) মূল সূচক শুরুতেই ইতিবাচক প্রবনতার মধ্য দিয়ে লেনদেন শুরু হয়ে সকাল ১১ টা পর্যন্ত ইতিবাচক ধারা ধরে রেখেছিল। এর কিছুক্ষণ পরে বাজার নেতিবাচক ধারাতে চলে যায়। তারপর বেশ কয়েক বার সূচকের ইতিবাচক হবার প্রবনতা দেখা গেলেও, আবারও সূচক নেতিবাচক ধারাতে চলে যায়।

এভাবে সূচকের উঠানামার মধ্য দিয়ে শেষ পর্যন্ত গত দিনের চেয়ে ২.৮৩ পয়েন্ট কমে আজকের লেনদেন শেষ হয়েছে।

আজ ডিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ৫৪৫.৬৮ কোটি টাকার শেয়ার। যা গতদিন ছিল ৬৪৯.৫৪ কোটি টাকার শেয়ার। আজ ডিএসইতে গত দিনের চেয়ে ১০৩.৮৬ কোটি টাকার কম শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের লেনদেন হয়েছে।

লেনদেনে আজ মূল সূচক ডিএসইএক্স সূচক ২.১৩ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৬২৬০.১৭ পয়েন্টে। এছাড়া ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক ০.৭৪ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ১৩৬২.৩২ পয়েন্টে। ডিএস ৩০ সূচক ১.০৮ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২২২৬.৯৬ পয়েন্টে।

আজ ডিএসইতে মোট ৩২৮ টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দাম বেড়েছে ৪৭ টির, দাম কমেছে ১১৩ টি এবং দাম অপরিবর্তিত ছিল ১৬৮ টির।



অপরদিকে দেশের ২য় শেয়ার বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সূচক ৫.৪৫ পয়েন্ট বাড়লেও লেনদেন গতদিনের চেয়ে কমেছে। আজ সিএসই সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৫.৪৫  পয়েন্ট বেড়ে সূচক অবস্থান করছে ১৮৪৫১.০৫ পয়েন্টে।

আজ সিএসইতে মোট ৯.৭৪ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে, যা গতকাল ছিল ২০.১৬ কোটি টাকা। আজ সিএসইতে গত দিনের চেয়ে ১০.৪২ কোটি টাকার কম শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের লেনদেন হয়েছে।

আজ সিএসইতে মোট ১৪৮ টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দাম বেড়েছে ৩৮ টির, কমেছে মাত্র ৪৮ টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৬২ টি কোম্পানির।

আজ কয়েকটি ব্রোকারেজ হাউজে গিয়ে দেখা গেল হাউজের অফিসার ও বিনিয়োগকারীগন একটি বিষয় নিয়ে আলাপ করতে। মোটামুটি সবার কথার সারমর্ম হলো হাতে গোনা মাত্র কয়েকটি শেয়ারই বাজারকে দখল করে নিয়েছে। দেখা যায় লেনদেনে টপ ২০ শেয়ারে যে লেনদেন হয়, তা বাজারের বাকি অন্য সব কোম্পানি গুলোর ৫০ শতাংশের ও বেশি লেনদেন হচ্ছে।

এছাড়া একজন বিনিয়োগকারী হতাস হয়ে বলেন তার দেখা সবচেয়ে ক্রিটিকাল বাজার যাচ্ছে এই মূহুর্তে। আজ যা বাড়ছে ১ দিন বেড়েই তা আবার দাম পতন হচ্ছে। তাই একদম লেনদেন করতে পারছেন না। জনৈক প্রবীণ বিনিয়োগকারী বলেন একটু দাম বাড়লেই লোকজন বিক্রি করছে, তাই বাজার দাড়াতে পারছেনা। তিনি দাবি করছেন ইন্সটিটিউট লেবেলে যেন ডে ট্রেডিং বন্ধ করে, তাহলে বাজার ভালো হবে।

আজকের বিষয় গুলো নিয়ে একজন অভিজ্ঞ বাজার বিশ্লেষকের সাথে টেলিফোনে কথা বলা হলে, তিনি সহজাত ভাষাতে উত্তর দিয়েছেন। তিনি বলেন লাভ হলে লাভ তুলে নিবে, এখানে কাউকে তো আটকানো যাবেনা। ইন্সটিটিউট লেবেলে ডে ট্রেডিং করল, না বিনিয়োগ করল তা নিয়ে তো আর তাদের ফোর্স করা যাবেনা। কর্তৃপক্ষ  যা পারে সেটা হলো অন্যায় ও অনিয়ম যেন কেউ না করতে পারে সে ব্যাপারে তদারকি করা। বাজারের অনিয়ম বন্ধ হলেই বাজার স্বাভাবিক হবে বলে তিনি মনে করেন।
Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn
আপনি এটাও পড়তে পারেন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

শেয়ার বাজার
error: বিষয়বস্তু সুরক্ষিত !!