ঢাকা শেয়ার বাজার

২১ জুলাই ২০২৪ রবিবার ৬ শ্রাবণ ১৪৩১

সূচক ও লেনদেন বাড়লেও উপকৃত হচ্ছেন না বিনিয়োগকারীরা

সবার আগে শেয়ার বাজারের নির্ভর যোগ্য খবর পেতে আপনার ফেসবুক থেকে  “ঢাকা শেয়ার বাজার ডট কম” ফেসবুক পেজে লাইক করে রাখুন, সবার আগে আপনার ওয়ালে দেখতে। লাইক করতে লিংকে ক্লিক করুন  facebook.com/dhakasharebazar

আজ বুধবার ৮ই ফেব্রুয়ারী ২০২৩, উভয় স্টক এক্সচেঞ্জের সূচক ও লেনদেন ইতিবাচক ধারাতে শেষ হয়েছে। তবে তুলনা মূলক ঢাকার চেয়ে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে আজ লেনদেনে তেজীভাব ছিল।

দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) মূল সূচক ও লেনদেন উভয়ই গত দিনের চেয়ে বেড়েছে। আজ ডিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ৭৪৮.৪৫  কোটি টাকার শেয়ার। যা গতদিন ছিল ৫৫৩.১৯  কোটি টাকার শেয়ার। আজ ডিএসইতে গত দিনের চেয়ে ১৯৫.২৬  কোটি টাকার বেশি শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের লেনদেন হয়েছে।

লেনদেনে আজ মূল সূচক ডিএসইএক্স সূচক ১০.২৫  পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ৬২৯৫.৬৫ পয়েন্টে। এছাড়া ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক ৫.১০ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ১৩৭৪.৯৬ পয়েন্টে। ডিএস ৩০ সূচক ৬.৮৮ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২২৪১.৫৭ পয়েন্ট।

আজ ডিএসইতে মোট ৩৩৬টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দাম বেড়েছে মাত্র ৪৪ টির, দাম কমেছে ১২০ টির এবং দাম অপরিবর্তিত ছিল ১৭২ টির।

 

অপরদিকে দেশের ২য় শেয়ার বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচক ও লেনদেন বেশ বেড়েছে। আজ সিএসই সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৫.৮৬ পয়েন্ট বেড়ে সূচক অবস্থান করছে ১৮৫৪০.২৪ পয়েন্টে।

আজ সিএসইতে মোট ২০.০৬ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে, যা গতকাল ছিল ৬.১৫ কোটি টাকা। আজ সিএসইতে গত দিনের চেয়ে ১৩.৯১ কোটি টাকার বেশি শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের লেনদেন হয়েছে।

আজ সিএসই তে মোট ১৪৮ টি কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দাম বেড়েছে ২৫ টির, কমেছে ৬২ টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৬১  টি কোম্পানির ।

 

আজ উভয় স্টক এক্সচেঞ্জে লেনদেনের শুরুতে বাজার ইতিবাচক ধারা দিয়ে শুরু হলেও সকাল ১১ টার পর বাজার নেতিবাচক আচরণ শুরু করে। যা বেলা ১২ টা পর্যন্ত নিন্মমুখী ধারা অব্যাহত ছিল। এর পরে উভয় স্টক এক্সচেঞ্জেই সূচকের ইতিবাচক ধারাতে চলতে থাকে এবং শেষ পর্যন্ত বাজার ইতিবাচক ধারাতেই সূচক ও লেনদেন শেষ হয়। আজকের বাজারে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন খাতের শেয়ারের মুভমেন্ট পরিলক্ষিত হয়। দিনের শুরুতে যে গুলির চাহিদা ছিল দেখা গিয়েছে, শেষের দিকে সেইসব শেয়ারের কোন চাহিদাই ছিলনা।

আজ দিনশেষে উভয় স্টক এক্সচেঞ্জের দাম বাড়ার শীর্ষে লোপেইড শেয়ারের আধিপত্য।

বাজার সংশ্লিষ্ট বেশ কিছু হাউজ ঘুরে দেখা গেল লেনদেন বাড়লেও হাউজের লোক বা বিনিয়োগকারীদের তেমন কোন উৎফুল্লতা লক্ষ্য করা যায়নি। বেশ কিছু বিনিয়োগকারীদের বক্তব্য বাজারে লেনদেন বাড়ছে তাতে আমাদের কি লাভ? আমাদের শেয়ারের কোন লেনদেন হচ্ছেনা। অনেক শেয়ারের দাম বাড়বে, বুঝে ও আমরা বিনিয়োগ করতে পারছিনা।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে একটি হাউজের নির্বাহি কর্মকর্তা বললেন, যে বাজারে ভালো মৌলভিত্তির শেয়ার কিনে বিনিয়োকারী আফসোস করতে হয়, সেই বাজার নিয়ে মানুষ কিভাবে আশাবাদী হতে পারে? তার মন্তব্য বাজারকে তার স্বাভাবিক গতিতে ছেড়ে দিতে হবে। খেয়াল রাখতে হবে যেন কোন অনিয়ম না হয়। বাজারে শুধু অনিয়ম গুলো রুখে দিতে পারলে বাজারে এমন খারাপ অবস্থা হতো না।

Share on facebook
Facebook
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn
আপনি এটাও পড়তে পারেন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

শেয়ার বাজার
error: বিষয়বস্তু সুরক্ষিত !!